হযরত আব্দুল্লাহ বিন ওমর রা.( দ্বিতীয় কিস্তি )

মুহাম্মাদ আব্দুস সালাম পিতার ইন্তেকালের পর সর্বপ্রথম ইবন উমারকে খলীফা নির্বাচনের মজলিসে দেখা যায়। হযরত উমর অসিয়াত করে যান যে, পরবর্তী খলীফা নির্বাচনের ব্যাপারে আব্দুল্লাহ শুধুমাত্র পরামর্শদাতা হিসাবে কাজ করবে। তাঁকে খলীফা বানানো চলবে না। হযরত ওসমান জিন্নুরাইন রা. নিজের শাসনামলে হযরত
বিস্তারিত

হযরত আব্দুল্লাহ বিন ওমর রা.( তৃতীয় কিস্তি )

মুহাম্মাদ আব্দুস সালাম হযরত ইবনে ওমর রা. আব্দুল মালিকের শাসনামলে ৭৪ হিজরীতে ৮৪ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন। চরিতকাররা তাঁর ইন্তেকালের প্রসঙ্গে বিভিন্ন ধরনের বর্ণনা পেশ করেছেন। ইবনে সায়াদ বর্ণনা করেছেন যে, একবার হাজ্জাজ বিন ইউসুফ খুতবা দিচ্ছিলেন। খুতবায় সে প্রতিপক্ষ হযরত আব্দুল্লাহ বিন য
বিস্তারিত

হযরত আব্দুল্লাহ বিন ওমর রা. (পঞ্চম কিস্তি)

মুহাম্মাদ আব্দুস সালাম বস্তুত তিনি গোলামের আমানতদারী ও খোদাভীতির জন্যে অত্যন্ত খুশি হয়েছিলেন। এ জন্যে যখন মদীনায় এলেন তখন তার মালিকের কাছ থেকে তাকে বকরী সমেত কিনে আযাদ করে দিলেন এবং সব বকরী তাকে দান করলেন। যেসব সাহাবী এবং তাবেয়ী হযরত ইবনে ওমরকে রা. দেখেছেন তারা একবাক্যে তাঁর সচ্চরি
বিস্তারিত

হযরত সাঈদ ইবনে যায়েদ রা. (প্রথম কিস্তি)

মুহাম্মাদ আব্দুস সালাম কুরাইশরা তাদের কোন একটি উৎসব পালন করছে। মানুষের ভিড় থেকে একটু দূরে দাঁড়িয়ে যায়েদ ইবন আমর ইবন নুফায়িল তা গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছেন। তিনি দেখছেন, পুরুষরা তাদের মাথায় বেঁধেছে দামী রেশমী পাগড়ী, গায়ে জড়িয়েছে মূল্যবান ইয়ামনী চাদর। আর নারী ও শিশুরা পরেছে মূল
বিস্তারিত

হযরত সাঈদ ইবনে যায়েদ রা. (দ্বিতীয় কিস্তি)

মুহাম্মাদ আব্দুস সালাম আফসোস! বনু হাশিমের ইয়াতীমের সাহায্যে কোন হাতই অগ্রসর হলো না।” হযরত হামযাহ রা. প্রিয় নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর যেমন চাচা ছিলেন, তেমনি ছিলেন দুধ ভাই। রক্ত ও দুধের আবেগ তাঁকে অস্থির করে তুললো। ভয়ানক ক্রোধান্বিত অবস্থায় তিনি ধনুক হাতে নিয়ে কা’বার দ
বিস্তারিত